Sun Mercury Venus Ve Ves
বিশেষ খবর
সরকারের সচিব হলেন লক্ষ্মীপুরের সুসন্তান মোঃ হাবিবুর রহমান  অতিরিক্ত আইজিপি হলেন লক্ষ্মীপুরের কৃতী সন্তান মোহাম্মদ ইব্রাহীম ফাতেমী  লক্ষ্মীপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস পালিত  সকলের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করতে চাই -মোহাম্মদ মাসুম, ইউএনও, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা  ফেনী জেলা পরিষদ শিশু পার্ক থেকে বিমুখ স্থানীয়রা 

ফেনীর শিরোপা জয়

সেইলর বাফুফে অনুর্ধ-১৫ ফুটবল টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছে ফেনী। ১৩ সেপ্টেম্বর বিকেলে অনুষ্ঠিত ফাইনালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নারায়ণগঞ্জকে ২-০ গোলে পরাজিত করে তারা। প্রবল বৃষ্টির কারণে গত ২ সেপ্টেম্বর ফাইনাল হওয়ার কথা থাকলেও ১০ দিন পর তা অনুষ্ঠিত হলো। নারায়ণগঞ্জ বরাবরই বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টগুলোয় ভালো করে এবং এবারও যথেষ্ট শক্তিশালী ছিল তারা। তবে এবার তাদের শ্রেষ্ঠত্ব ক্ষুণœ করল ফেনী। অবশ্য খেলার শেষদিকে নারায়ণগঞ্জের ডিফেন্ডার আরাফাত হোসেনকে লালকার্ড দেখানো হলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় তারা। তবে এর আগেই দু’টি গোল হজম করেছিল নারায়ণগঞ্জ।
দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে সেটা আগেভাগেই ধারণা করা হচ্ছিল। খেলা শুরুর পর সেই ছাপটাই দেখা গেল। প্রথমদিকে নারায়ণগঞ্জ বেশ চড়াও হয়েই খেলতে শুরু করেছিল। বেশ কয়েকটি ভালো আক্রমণও রচনা করে। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি। নারায়ণগঞ্জের ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ ইব্রাহীম খেলা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই দারুণ এক সুযোগ পেয়েছিলেন। প্রথম মিনিটে ফেনীর গোলরক্ষক মোঃ ইয়াকুবকে একা পেয়েছিলেন তিনি। তবে তিনি লক্ষ্যভেদ করতে ব্যর্থ হন। ইব্রাহীমের নেয়া জোরালো শট সরাসরি চলে যায় ইয়াকুবের হাতে। ধীরে ধীরে ফেনীও আক্রমণে উঠে আসে। জবাব দিতে থাকে নারায়ণগঞ্জকে সমান তালে। আক্রমণ পাল্টাআক্রমণে জমে ওঠে খেলা। ২২ মিনিটের সময় দারুণ এক সুযোগও বের করে নিয়েছিল গোল করার। ফেনীর ফরোয়ার্ড নুরুল আবসার দারুণ এক শট নিয়েছিলেন। কিন্তু নারায়ণগঞ্জের গোলরক্ষক অন্তর কুমার বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দলকে রক্ষা করেন নিশ্চিত গোল হজম করা থেকে। অন্তর অনুর্ধ-১৬ জাতীয় দলের খেলোয়াড়। তবে প্রথম সুযোগটা কাজে লাগাতে না পারলেও দ্বিতীয় সুযোগটা আর হাতছাড়া করেননি আবসার। ৪১ মিনিটের সময় গোলখরা কেটেছে। বক্সের মাথা থেকে দারুণ এক শট নিয়েছিলেন ফেনী ফরোয়ার্ড আব্দুল্লাহ আবরার রাজন। অন্তর এ যাত্রা বলটা ঠিকভাবে আয়ত্তে নিতে ব্যর্থ হয়েছেন। ফিরতি বলে সুযোগসন্ধানী আবসার টোকা মেরে জালে পাঠিয়ে দেন (১-০)। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণের ধারে তীব্রতা ছিল ফেনীর। সে কারণে দ্বিতীয় গোল পেতে বেশি দেরি হয়নি। ৫৪ মিনিটে থ্রো থেকে বল পেয়েছিলেন মিডফিল্ডার সারোয়ার হোসেন। এরপর ফ্রি-কিক পায় তারা। অধিনায়ক ইফতেখার হোসেন কনিকের দুর্দান্ত ফ্রি-কিক ফিস্ট করে ফিরিয়ে দেন নারায়ণগঞ্জ গোলরক্ষক অন্তর। আগুয়ান সারোয়ার ফিরে আসা সেই বলে গতিময় এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন (২-০)। এরপর গোল পরিশোধের প্রচেষ্টা চালালেও উজ্জীবিত ফেনীর খেলোয়াড়দের সঙ্গে পেরে ওঠেনি নারায়ণগঞ্জ। উল্টো ৮৫ মিনিটের সময় ১০ জনের দলে পরিণত হয় তারা। ডিফেন্ডার আরাফাত ফাউল করার কারণে সরাসরি লালকার্ড দেখেন। বাকিটা সময় ফেনীর আক্রমণ ঠেকিয়ে কাটিয়েছে তারা। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল হয়নি। খেলার পর পুরস্কার বিতরণীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। এছাড়া বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন ও বাফুফে সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, ইপিলিয়ন গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিয়াজ উদ্দিন আল-মামুন উপস্থিত ছিলেন। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ফেনী ট্রফি, মেডেল ছাড়াও দুই লাখ টাকা এবং রানার্সআপ নারায়ণগঞ্জ ট্রফি, মেডেল ও এক লাখ টাকা পুরস্কার হিসেবে অর্জন করেছে।