Sun Mercury Venus Ve Ves
বিশেষ খবর
লক্ষীপুর-২ আসনের এমপি পাপুল কুয়েতে গ্রেফতার  পাপুলের উত্থান যেভাবে  একজন ‘মানবিক’ উপজেলা চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু  লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রে চিকিৎসা দিচ্ছে সেনাবাহিনী  লক্ষ্মীপুরে জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি আজিজুর রহমান মিয়া 

গ্রামের ভিতর এমন সুন্দর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দেখে আমি অবাক -লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল

আমি অবাক হয়ে গেছি, শহরের কোলাহল থেকে অনেক দূরে গ্রামের ভিতর মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশের মাঝে এমন সুন্দর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অল্প সময়ের মধ্যে প্রতিষ্ঠানের ভালো ফলাফল দেখে। লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল সম্প্রতি রামগঞ্জ উপজেলার ফরিদ আহমেদ ভূইয়া একাডেমীর নবীনবরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলি বলেন। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, অনেক স্বপ্ন নিয়ে তোমাদের বাবা-মা ভালো লেখাপড়া করানোর জন্য এ প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করিয়েছেন, সেদিকে তোমাদের খেয়াল রাখতে হবে। একদিন তোমারাই হবে এদেশ ও জাতির কর্ণধার। সফল হতে হলে ইন্টারমিডিয়েটের আগে বই আর লেখাপড়া ব্যাতিত অন্য কোনো দিকে নজর দেয়া যাবে না। এ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ফরিদ আহমেদ ভূইয়া শিক্ষাখাতে যে অবদান রাখছেন, তা একদিন তোমাদের ও দেশের জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে। সম্প্রতি ফরিদ আহমেদ ভূইয়া একাডেমীর ২০২০ সালে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান একাডেমী মিলায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমেদ ভূইয়ার সভাপতিত্বে এবং শিক্ষার্থী সামিহা ও ওমর ফারুক রাহাতের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম, প্রতিষ্ঠানের ভাইস-চেয়ারম্যান ডাঃ তাসকেরা খানম, রামগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ হুমায়ুন রশিদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য- দানবীর খ্যাত বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী ফরিদ আহমেদ ভূইয়া তাঁর জীবনে অর্জিত সম্পদের সিংহভাগ অংশ ব্যয় করে নিজ জন্মভূমি রামগঞ্জ উপজেলার উদয়পুর গ্রামে চমৎকার নৈসর্গিক পরিবেশের মাঝে প্রায় ৪০ বিঘা জমির ওপর বৃহত্তম নোয়াখালী জেলার মধ্যে সবচেয়ে নান্দনিক একাডেমী ভবন, অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরী, মিলায়তন, শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের পৃথক পৃথক আবাসিক ভবন এবং শিক্ষকদের জন্য অবাসিক ভবনসহ আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত এ প্রতিষ্ঠানটি ২০১৭ সালে গড়ে তোলেন।

প্রতিষ্ঠানটি শুরুতে ২০১৯ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় (১ম ব্যাচ) শতভাগ পাসসহ লক্ষ্মীপুর জেলায় ১ম স্থান অর্জন করে এবং একই ব্যাচে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কম হলেও মানসম্মত শিক্ষার কারণে ১০জন শিক্ষার্থী ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের খ্যাতনামা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির চান্স পায়। একই বছর জেএসসি পরীক্ষায়ও শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানে ৪৩০জন ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে।