Sun Mercury Venus Ve Ves
বিশেষ খবর
রোহিঙ্গা ইস্যুতে লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবী ও মানবাধিকার সংগঠনের মানববন্ধন  লক্ষ্মীপুরে সরকারের সাফল্য অর্জন ও উন্নয়ন ভাবনা বিষয়ক মহিলা সমাবেশ  বর্ণাঢ্য আয়োজনে লক্ষ্মীপুরে সোনাপুর ছাত্র উন্নয়ন পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী  শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জে সহকারী শিক্ষক সমিতির মানবন্ধন  লক্ষ্মীপুরে ৪ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকার কাজের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য একেএম শাহজাহান কামাল 

প্রধানমন্ত্রীর কাছে নোয়াখাইল্যার নালিশ

আপা, আংগো সেলাম ও শুভেচ্ছা নিয়েন। সারাদেশে বন্যা আঘাত হাইনছে। জনজীবন লন্ডভন্ড অই গেছে। শহরে বসি আন্দাজ করন যায় না। লক্ষ হানিবন্দি লোকদের উদ্ধারে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা অহনঅ’ দৃশ্যমান নয়। এর আগে আননের সরকারের আমলে মহাপ্লাবনের সময় বিদেশি সংবাদ সংস্থা বলেছিল- সে বন্যায় দুইলক্ষ লোক মারা যাইবো। সে সময় বিরোধী দলের নেতা-নেত্রীরাও এ কথা বিশ্বাস করি সরকারের আসন্ন পতন লই নানা হরিকল্পনা কইরছিলেন। আননের দূরদর্শিতা আর প্রবল আত্মবিশ্বাসের কারণে আল্লাহর মেহেরবানিতে হেই বন্যায় একটি লোকও মরে ন’।
ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় দেশে বিচার বিভাগ ও নির্বাহী বিভাগের মইধ্যে একটি সূক্ষ্ম বিরোধ সৃষ্টির আশংকা করা অইছে। এই বিরোধ স্থায়ী রূপ লাভ কইরতে হারে। সরকারের মধ্যে একটা অস্থিরতা লক্ষ্য করা যাইতেছে। সম্ভবত এজন্যই বন্যার্তদের ব্যাপারে সরকারকে আগের মতন ভূমিকায় দেখা যাইতেছে না। ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করি বিচারক নিয়োগ এবং এতদসংক্রান্ত বিষয়ে বিচারকরা সংসদের সার্বভৌমত্ব ক্ষুণœ করি তারা নিজেগো ক্ষমতা নিরংকুশ করি সুপ্রিম ক্ষমতার অধিকারী অইবো বলি ধারণা করা অইতেছে। এটি ভাবনার বিষয় যে, দেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত অন পার্লামেন্ট সদস্যদের ভোটে, আবার প্রধান বিচারপতির নিয়োগ দেন প্রেসিডেন্ট নিজেই। সেখানে কোন্ যুক্তিতে পার্লামেন্টের ক্ষমতা খর্ব করা অইবো, বিচারক নিয়োগের ব্যাপারে তাদের ক্ষমতা কেড়ে নেয়া অইবো, তাদের সার্বভৌমত্ব খর্ব করা অইবো তা মাথায় আসে না। প্রধান বিচারপতি নিজের নিয়োগ প্রাপ্তির হর অন্যান্য বিচারক নিয়োগের সুপারিশ কইরতে হারেন, কিন্তু এক্ষেত্রে সর্বময় ক্ষমতা হাতে নিতে হারেন ন’। জনগণের ভোটে নির্বাচিত সংসদ সদস্যগো দ্বারা গঠিত সংসদ সার্বভৌম ক্ষমতার অধিকারী। বর্তমান প্রধান বিচারপতি একটি প্রতিষ্ঠিত বিষয়কে উপেক্ষা করি নিজ ক্ষমতার অপব্যবহার কইরছেন বলি বিভিন্ন মহল তুন অভিযোগ উইঠছে। সচেতন জনগণ ইগাইনের তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত কইরছেন।
জনশক্তি রপ্তানি, গার্মেন্টস রপ্তানিতে ভাটা পইড়ছে। এজন্যে বিভিন্ন দেশে জনশক্তি রপ্তানির চেষ্টা কইরতে অইবো। বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে আরও সক্ষম করি তুইলতে অইবো, প্রয়োজনে দক্ষ, স্মার্ট, চৌকস নেতৃত্বের হাতে এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বভার দিতে অইবো। দেশীয় ধনিক-বণিক শ্রেণিতুন সঠিকভাবে কর আদায় করি, ভ্যাট আদায় করি রাজস্ব আয় বাড়াইতে অইবো। অন্যদিকে রপ্তানি আয় বৃদ্ধির মাইধ্যমে মুল্যবান বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আরও বাড়াইতে অইবো। যথেষ্ট হরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সঞ্চয়ে থাকার কারণে বন্যায় ক্ষয়-ক্ষতি পূরনের জন্য খাদ্য আমদানি সম্ভব অইতেছে।
বরাবরের মতো নোয়াখালী আঙ্গিকে কিছু সমইস্যার কথা তুলি ধইরতে চাই। বৃহত্তর নোয়াখালীর কোনো কোনো অঞ্চল অহন অ’ সন্ত্রাসমুক্ত অয় ন’। শান্তি-স্থিতিশীলতা বজায় থাইকলে উন্নয়ন ত্বরান্বিত অয় -এটা প্রমাণের অপেক্ষা রাখে না। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী নোয়াখালীর হওয়া সত্ত্বেও নিজ অঞ্চলের সড়ক উন্নয়নে নজর দিতে হাইরছেন না। এতে তিনি কতটুকু সিরিয়াস, নোয়াখালীর লোক তাই ভাবছেন। বাকি এক বছর সময়ের মইধ্যে তিনি কতটুকু সমর্থ অইবেন তাতে নোয়াখালীবাসী সন্দেহ কইরছেন। তবে নোয়াখালীবাসী অহন অ তাঁর সম্পর্কে আশাবাদী। এই আশাবাদের প্রেক্ষিতে বৃহত্তর নোয়াখালীর রাস্তাঘাট যান চলাচলের উপযুক্ত অইবো, প্রশস্ত অইবো, এটা জনগণের প্রত্যাশা। যেসব রাস্তা আর খাল অবৈধ দখলের কবলে পড়ইছে, সেগুলো উদ্ধারের ত্বরিৎ ব্যবস্থা নেয়ার জন্যই জনগণের আশা। আজ ইয়ানে ইতি টাইনছি। আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ ওয়া বারাকাতুহু।
-এম মোস্তফা