Sun Mercury Venus Ve Ves
বিশেষ খবর
লক্ষ্মীপুরে মডেল থানা পুলিশের আলোচনা সভা ও আনন্দ উদযাপন  লক্ষ্মীপুরে বিএনপি নেতা ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সোহেলের সংবাদ সম্মেলন  লক্ষ্মীপুর মডেল থানায় ওসি (তদন্ত) শিপন বড়ুয়ার যোগদান  ঘর মেরামতে ঢেউটিন উপহার পেলেন লক্ষ্মীপুরের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী জসিম  রায়পুর প্রেস ক্লাবের নির্বাচনে সভাপতি মাহবুবুল আলম মিন্টু ও সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নির্বাচিত 

এক নজরে বেগমগঞ্জ

১৯৮২ খ্রিষ্টাব্দে নোয়াখালী জেলার জনবহুল বেগমগঞ্জ থানা প্রতিষ্ঠিত হয়। এ থানার নামকরণ উৎপত্তি সম্পর্কে নির্দিষ্ট কিছু জানা যায়নি। এটা জানা গেছে যে, মোঘলদের রাজত্বকালে তৎকালীন বাংলার সুবেদার শায়েস্তা খান তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে এ এলাকা পরিদর্শনে আসেন। তাঁর পরিদর্শনের পর হতে এ এলাকা বেগমগঞ্জ নামে পরিচিতিলাভ করে। ১৯৮১ সালের আদমশুমারীর তথ্য অনুসারে বাংলাদেশের মধ্যে জনসংখ্যার দিক থেকে বেগমগঞ্জ থানা সর্ববৃহত্তম হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। ১৯৯১ সালের আদমশুমারী পর্যন্ত এ অবস্থা বিদ্যমান ছিল।

এক নজরে উপজেলা
আয়তনঃ ২৩৭.৮২ বর্গকিঃমিঃ; জনসংখ্যাঃ ৪৭৬৩২৪; ঘনত্বঃ ১৮০১ প্রতি বর্গ কিঃমিঃ; নির্বাচনী এলাকাঃ নোয়াখালী-৩, বেগমগঞ্জ; ইউনিয়নঃ ১৬টি; পৌরসভাঃ ১টি; গ্রামঃ ২০৩টি; মৌজাঃ ১৯৭টি; কাঁচা রাস্তাঃ ৯৮৭ কিঃমিঃ, পাকা রাস্তাঃ ১৬১ কিঃমিঃ, আধাপাকা রাস্তাঃ ২৩ কিঃমিঃ; কৃষি জমির পরিমাণঃ ৪১৮৯৯, অকৃষি জমির পরিমাণঃ ১৬৮৬৮; সরকারি হাসপাতালঃ ১টি (১০শয্যা বিশিষ্ট); স্বাস্থ্যকেন্দ্রঃ ২টি; পোস্ট অফিসঃ ২টি (প্রধানঅফিস), ১৬টি (শাখা অফিস); শিক্ষা প্রতিষ্ঠানÑ মহাবিদ্যালয়ঃ ৩টি, উচ্চ বিদ্যালয়ঃ ৪২টি, প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ২৬২টি, মাদরাসাঃ ৩২টি; নদ-নদীঃ নাই; হাট বাজারঃ ৩১টি; স্টেডিয়ামঃ ১টি; চিংড়ি হ্যাচারীঃ ১টি; ব্যাংকঃ ৩৬টি; মসজিদঃ ১১০৩টি; মন্দিরঃ ৩৪২টি; মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যাঃ ১৩৬০জন;
শিক্ষার হারঃ ৫৫.৪৪%
উল্লেখযোগ্য স্থান/স্থাপনা
বেগমগঞ্জ কালচারাল একাডেমী এন্ড লাইব্রেরী, চৌরাস্তা বীরশ্রেষ্ট রুহুল আমিন স্মৃতিসৌধ, চৌরাস্তা কৃষি প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট, বিসিক শিল্প নগরী, বেগমগঞ্জ দিঘী, ডেল্টা জুট মিলস, চৌমুহনী পাবলিক হল, চৌমুহনী রেলওয়ে স্টেশান।
সোনাগাজীতে মেম্বারকে ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে তুলে দিলেন চেয়ারম্যান
ফেনীর সোনাগাজীতে সরকারি গাছ ও মাটি কাটায় রমজান আলী নামের এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্যকে (মেম্বার) ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারকের হাতে তুলে দিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান।
১ এপ্রিল দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত একটি স্ক্যাভেটর জব্দ করেন আদালত।
ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বেশ কয়েকদিন ধরে সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের পালগীরি গ্রামের বদর মোকাম খালের পাড়ের মাটি ও গাছ কেটে বিক্রি করে দিচ্ছেন পার্শ্ববর্তী চরদরবেশ ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার) রমজান আলীসহ একটি চক্র। বিষয়টি জানতে পেরে সোনাগাজী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ জাকির হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা দেখতে পান। এক পর্যায়ে মতিগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান রবিউজ্জামান বাবু অভিযুক্ত মেম্বারকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের হাতে সোপর্দ করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ জাকির হোসেন জানান, অভিযুক্ত ইউপি সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদে করা হলে তিনি নিজের দোষ স্বীকার করেন এবং অনুতপ্ত হন। আগামীতে এ ধরনের কোনো কাজ তিনি করবেন না বলে মুচলেকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।